সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৫২ অপরাহ্ন

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে ধোঁয়া এবং পোড়া প্লাস্টিকের গন্ধ, কী ঘটেছিল

মেঘনার আলো ২৪ ডেস্ক / ৩২ বার পঠিত
আপডেট : শুক্রবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:৩৭ পূর্বাহ্ণ
গত বছর আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের এই ছবিটি তোলা হয় সয়ুজ নভোযান থেকে।

রুশ গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে , আন্তজাতিক মহাকাশ কেন্দ্রের রুশ নিমিত যেভেদযা অংশে এই আগুনের সূত্রপাত হয়। মহাকাশ কেন্দ্রের ক্রুরা  এই অংশে বসবাস করেন।

আন্তর্জাতিক মহাকাশ কেন্দ্রটি পুরোনো হয়ে পড়ায় গত কয়েক বছরে সেখানে এরকম বেশ কিছু দুর্ঘটনা ঘটেছে। একজন রুশ কর্মকর্তা সম্প্রতি হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন যে, এটির যন্ত্রপাতি এখন সেকেলে হয়ে পড়েছে এবং ঠিকমত কাজ করছে না। গত কয়েক বছরে এটি থেকে বাতাস বেরিয়ে যাওয়া, ইঞ্জিন বিকল হওয়া এবং এর কাঠামোতে ফাটল ধরার মতো ঘটনা ঘটেছে।

রাশিয়ার মহাকাশ সংস্থা রসকসমস অবশ্য পরে জানিয়েছে, মহাকাশ কেন্দ্রের সবকিছু পূর্বের স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসেছে।

সংস্থাটি জানিয়েছে, মহাকাশ কেন্দ্রের ব্যাটারিগুলো যখন চার্জ করা হচ্ছিল, তখন সেখানে ধোঁয়া দেখা যায়। তবে পরিস্থিতি সামাল দেয়ার পর ক্রুরা এখন তাদের ‘নিয়মিত প্রশিক্ষণে’ ফিরে গেছে।

বলা হচ্ছে, পোড়া প্লাস্টিকের গন্ধ শুরুতে মহাকাশ কেন্দ্রের রুশ নির্মিত অংশ থেকেই পাওয়া যাচ্ছিল, পরে যুক্তরাষ্ট্রের অংশেও এই গন্ধ ছড়িয়ে পড়ে।

যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ সংস্থা নাসা জানিয়েছে আজ বৃহস্পতিবার পরের দিকে যে ‘স্পেস ওয়াক’ বা মহাকাশে বিচরণের কর্মসূচি ছিল, তা অপরিবর্তিত আছে।

সম্প্রতি যে ‘নাউকা সায়েন্স মডিউলটি’ আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে পৌঁছে দেয়া হয়েছে, দু’জন রুশ নভোচারী সেটি নিয়ে কাজ করবেন বলে কথা রয়েছে

গত ১লা সেপ্টেম্বর একজন রুশ কর্মকর্তা ভ্লাদিমির সলোভিয়ভ রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, সেকেলে যন্ত্রপাতির কারণে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন এমনভাবে বিকল হয়ে যেতে পারে যা আর ঠিক করা যাবে না।

মহাকাশ কেন্দ্রটির রুশ নির্মিত অংশের ইন-ফ্লাইট সিস্টেমের অন্তত ৮০ শতাংশ যন্ত্রপাতির মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছিলেন এনার্জিয়া নামের একটি মহাকাশ কোম্পানির প্রধান প্রকৌশলী মিস্টার সলোভিয়ভ। আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের রুশ মডিউলগুলো তৈরি করেছে যেসব প্রতিষ্ঠান, তাদের মধ্যে এনার্জিয়া হচ্ছে নেতৃস্থানীয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

এক ক্লিকে বিভাগের খবর