শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০৭:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
মন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে গিয়ে আ.লীগ নেতার আইফোন চুরি শক্তিশালী হাজীগঞ্জ উপজেলাকে হারিয়ে সেমিফাইনালে শাহরাস্তি উপজেলা তালাবদ্ধ ঘরে মা ও দুই ছেলের লাশ প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে ৭৬ ছাত্রীকে সাইকেল দিলো ছাত্রলীগ নিয়োগের ফাইল স্বাক্ষরে কর্মকর্তাদের দিতে হয় টাকা —- প্রধান শিক্ষক আবু তাহের ফরিদগঞ্জে আওয়ামী লীগের বর্ণাঢ্য আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালিত। জলাতঙ্ক প্রতিরোধে মানুষের আচরণ পরিবর্তন করতে হবে: রাষ্ট্রপতি চোখ উঠা রুগীদের যে নির্দেশনা দিল বিমানবন্দর কতৃর্পক্ষ পঞ্চগড়ে নৌকাডুবিতে প্রাণহানি : রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক নির্ধারিত দামে মিলছে না ভোজ্যতেল ও চিনি

উচ্চ-গতির ট্রেন চালাবেন ৩১ সৌদি নারী

মেঘনার আলো ২৪ ডেস্ক / ৪৩ বার পঠিত
আপডেট : রবিবার, ৭ আগস্ট, ২০২২, ৭:২২ অপরাহ্ণ

সৌদি আরবের প্রথম নারী ট্রেনচালক হিসেবে চলতি বছরের শুরুতে প্রশিক্ষণে যোগ দেন ৩১ জন। জেদ্দা হয়ে মক্কা-মদিনা রুটে চলমান হারামাইন হাইস্পিড ট্রেনের শিক্ষানবিশ তারা। সৌদি গ্যাজেটের এক প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, সম্প্রতি ওই নারীদের তত্ত্বীয় প্রশিক্ষণ শেষ হয়েছে। এবার তারা শুরু করেছেন ব্যবহারিক ক্লাস। আর এর মধ্য দিয়ে সৌদি আরবে প্রথমবার কোনো নারীর হাতে যাচ্ছে ট্রেনের নিয়ন্ত্রণ। প্রশিক্ষণের দ্বিতীয় পর্যায়ে আগামী ৫-৬ মাস অভিজ্ঞ ট্রেন চালকদের সঙ্গে ব্যবহারিক ক্লাসে যোগ দেবেন তারা।

মার্চে শুরু হওয়া প্রশিক্ষণের প্রথম পর্যায়ে এই ৩১ নারী ৪৮৩ ঘণ্টার তত্ত্বীয় ক্লাসে অংশ নেন। তাদের পাঠ্যসূচিতে ছিল রেলওয়ের মৌলিক জ্ঞান, ট্রাফিক ও নিরাপত্তা আইন, কাজের ঝুঁকি, অগ্নিনির্বাপন এবং রেল ও রেলওয়ে অবকাঠামো সম্পর্কিত কারিগরি বিষয়াদি। সৌদি রেলওয়ে পলিটেকনিকের (এসআরপি) সঙ্গে হারামাইন প্রকল্পের বড় অংশীদার স্প্যানিশ কোম্পানি রেনফে এই প্রশিক্ষণের আয়োজন করেছে। তারা গত নয় বছরে ১৩০ জন সৌদি নাগরিককে প্রশিক্ষণ দিয়েছে। বছরের শুরুতে ৩০ নারী ট্রেন চালকের জন্য বিজ্ঞাপন দিলে দেশটিতে সাড়া পড়ে যায়। তখন ২৮ হাজারের মতো নারী আবেদন করেন। তাদের মধ্য থেকে সাক্ষাৎকারের পর ১৪৫ জন নির্বাচিত হন, এরপর প্রশিক্ষণের প্রথম পর্যায়ে যোগ দেন ৩৪ জন।

তত্ত্বীয় পর্বে উর্ত্তীণ ৩১ জনের মধ্যে ৭০ শতাংশেরই বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি রয়েছে। বর্তমান নিয়োগ ও প্রশিক্ষণ পর্বে অংশগ্রহণকারী পুরুষ ইন্টার্নদের ক্ষেত্র এই হার মাত্র ৩০ শতাংশ। আশা করা হচ্ছে সব পরীক্ষা ও প্রশিক্ষণে উর্ত্তীণ হওয়া চালকেরা আগামী ডিসেম্বরের শেষ দিকে সৌদির নির্দিষ্ট গন্তব্যগুলোতে ট্রেন নিয়ে যাত্রা করবে। আগামী দিনগুলোতে সৌদি পুরুষ ও নারী ট্রেন চালকের সংখ্যা আরো বাড়বে। আশা করা হচ্ছে সামনের কয়েক বছরে দেশটিতে বিশেষ করে হজ ও ওমরাহর মৌসুমে রেল ভ্রমণ উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পাবে। এক সময় সৌদি আরবে গাড়ি চালানোর জন্য নারীদের আন্দোলনে যেতে হয়েছিল। সংগঠকদের কেউ কেউ জেলও খেটেছেন। রেলে চালকের আসনে জায়গা করে নেওয়া সে দিক থেক সৌদি নারীদের একটি বড় অর্জন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

এক ক্লিকে বিভাগের খবর