বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৩:৫৩ পূর্বাহ্ন

চালু হচ্ছে বাংলাদেশ-ভারতের যাত্রীবাহী ট্রেন

মেঘনার আলো ২৪ ডেস্ক / ৩৬ বার পঠিত
আপডেট : বুধবার, ১৬ মার্চ, ২০২২, ৫:৩৭ অপরাহ্ণ

আগামী ২৬ মার্চ থেকে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল শুরু করতে বাংলাদেশ রেলওয়েকে চিঠি দিয়েছে ভারত। তবে ওই তারিখ থেকে ট্রেনে যাত্রী পরিবহন করবে কি না, তা এখনো সিদ্ধান্ত নেয়নি বাংলাদেশ রেলওয়ে। বুধবার (১৬ মার্চ) দুপুর ১২টায় সাংবাদিকদের এ কথা জানান রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার শরিফুল আলম।

তিনি বলেন, সম্প্রতি আগামী ২৬ মার্চ থেকে বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের যাত্রীবাহী ট্রেন চালু করতে চিঠি দিয়েছে ভারত। তবে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল করবে কি না, তা এখনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। এ বিষয়ে আগামী রোববার (২০ মার্চ) রেলওয়ের একটি বেঠক রয়েছে। ওই বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

করোনার লকডাউনে ২০২০ সালের মার্চে বন্ধ হয়ে যায় ভারত-বাংলাদেশ ট্রেন চলাচল। পরে পণ্যপরিবহন চালু হলেও যাত্রী পরিবহন বন্ধই থাকে। করোনার প্রভাব কমতে শুরু করলে পর্যায়ক্রমে সড়ক ও আকাশপথে যাত্রী পরিবহন শুরু হয়। তবে এখনো দু’দেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

ট্রাভেল ট্যাক্সসহ (৫০০ টাকা) এসি সিট দুই হাজার পাঁচ টাকা ও এসি চেয়ার এক হাজার ৫০৫ টাকা। আর ঢাকা-কোলকাতার দূরত্ব ৩৭৫ কিলোমিটার এবং এ রুটের যাত্রীপ্রতি ভাড়া ট্রাভেল ট্যাক্সসহ (৫০০ টাকা) এসি সিট তিন হাজার ৫০৫ টাকা ও এসি চেয়ার দুই হাজার ৫০৫ টাকা।

ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে তিনটি ট্রেন চলাচল করে। ঢাকা-কলকাতা রুটে মৈত্রী এক্সপ্রেস, খুলনা-কলকতা রুটে বন্ধন এক্সপ্রেস ও ঢাকা-জলপাইগুড়ি রুটে মিতালী এক্সপ্রেস। ট্রেন এখনো বন্ধ থাকায় বিড়ম্বনায় পড়েছেন তিন রুটের হাজার হাজার যাত্রী।

উভয় দেশে যাত্রীবাহী ট্রেন বন্ধ থাকলেও করোনাকালে বাংলাদেশ-ভারতে রেলপথে পণ্য পরিবহন চালু ছিল। ২০২০-২১ অর্থবছরে ভারত থেকে রেলপথে পণ্য আমদানি হয় ৩৬ লাখ ৯৪ হাজার টন। আগের (২০১৯-২০) অর্থবছর আমদানির পরিমাণ ছিল ১৬ লাখ ৩৪ হাজার টন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

এক ক্লিকে বিভাগের খবর