রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১১:৩৪ অপরাহ্ন

শ্রমিক-হকারদের টিকা দেওয়া শুরু

মেঘনার আলো ২৪ ডেস্ক / ১৪৭ বার পঠিত
আপডেট : শনিবার, ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ১:৪৮ অপরাহ্ণ

রাজধানী ঢাকার কর্মচারী, শ্রমিক, নিরাপত্তাকর্মী, পরিচ্ছন্নতাকর্মী ও ফুটপাতের হকারদের আজ শনিবার থেকে করোনার টিকা দেবে সরকার। এজন্য ঢাকা শহরকে ৯টি জোনে ভাগ করা হয়েছে। তাদের দেওয়া হবে সিনোভ্যাক টিকা। প্রথমে পাঁচ লাখ টিকা দেওয়া হবে। পরে পর্যায়ক্রমে সারা দেশে এই শ্রেণির মানুষকে টিকার আওতায় আনা হবে।

আজ সকাল ৯ টায় এ টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন হবে উত্তরার ৩ নম্বর সেক্টরের ফ্রেন্ডস ক্লাব মাঠে। প্রথম দিন ১০ হাজার মানুষকে টিকা দেবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। পরে ঢাকা শহরের অন্যান্য জোনে টিকা দেওয়া হবে।

শ্রমিক ও কর্মচারীদের টিকাদানের ব্যাপারে সরকারের করোনা টিকাদান ব্যবস্থাপনা টাস্কফোর্স কমিটির সদস্য সচিব ডা. শামসুল হক গণমাধ্যমকে বলেন, এই শ্রেণির সংখ্যা কেমন, তা সঠিক জানা যায়নি। দোকান মালিক সমিতি সব দোকানকে বলে দিয়েছে। অনেক দোকানের কর্মচারীরা নিয়েছেন। আমাদের পর্যাপ্ত টিকা থাকবে। যত সংখ্যকই হোক, টিকা পাবে। আমরা সবাইকে দিতে পারব। আমাদের টিকাদান কর্মী থাকবে।

তিনি আরও বলেন, নিবন্ধন করে নিয়ে এলে বা নিবন্ধন ছাড়া এলেও টিকা পাবে। হোটেল মালিক ও কর্মচারীদেরও এখানে টিকা দেওয়া হবে। আমরা বলেছি, যে এলাকায় যেদিন টিকা দেওয়া হবে, সব দোকান মালিক ও কর্মচারীকে নিয়ে আসবে। গরিব মানুষের যে দোকান, তাদেরও দেওয়া হবে।

দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন বলেন, কর্মচারী, শ্রমিক, নিরাপত্তাকর্মী, পরিচ্ছন্নতাকর্মী, হকার- সবাইকে টিকার আওতায় আনা হবে। দুদিন পর বলে দেব, টিকা ছাড়া কোনো লোক মার্কেটে আসতে পারবে না, ফুটপাতে দোকান নিয়ে বসতে পারবে না। এই শ্রেণির মধ্যে হোটেল কর্মচারীরাও রয়েছে। আমরা তাদেরও বলেছি।

তিনি আরো বলেন, নিবন্ধন লাগবে না। টিকা কেন্দ্রে তার নাম ও ঠিকানা লিখে রাখা হবে। প্রত্যেককে একটি কার্ড দেওয়া হবে, যাতে দ্বিতীয় ডোজ টিকা নিতে পারে।

সরকার বাদ পড়া চার শ্রেণির মানুষকে করোনার টিকার আওতায় আনার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে। এর মধ্যে ভাসমান মানুষ ও কওমি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের গত ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে করোনার টিকা দেওয়া শুরু করেছে। ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ভাসমান জনগোষ্ঠীর ২৩ হাজার ৪০৬ ও কওমি মাদ্রাসার ৪ হাজার ৪১৮ জন শিক্ষার্থী টিকা পেয়েছে। আজ থেকে শুরু হচ্ছে শ্রমিক ও কর্মচারীদের টিকাদান। অবশিষ্ট স্কুলে যায় না এমন ১২-১৭ বছর বয়সী শিশু-কিশোর-কিশোরীদেরও টিকা দেবে সরকার।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

এক ক্লিকে বিভাগের খবর