বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ১০:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
নির্ধারিত মূল্যের থেকেও কম ভাড়া তবুও মিলছে না যাত্রী হাজীগঞ্জে সাংবাদিক হাছান মাহমুদের ‘মা’ আর নেই ফেরি পারাপারে ২০ শতাংশ ভাড়া বাড়ছে গার্ডার দুর্ঘটনা: ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের গাফিলতি পেয়েছে তদন্ত কমিটি স্বর্ণকলি হাই স্কুলে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত  হাজীগঞ্জ সরকারি মডেল পাইলট হাই স্কুল এন্ড কলেজে জাতীয় শোক দিবস পালিত ভাইরাল প্রেমিক দম্পতির প্রেমিকার আত্মহত্যা হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজে মোজাম্মেল হক চৌধুরীর জানাযা ও শ্রদ্ধাজ্ঞাপন হাজীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোহন চৌধুরীর মৃত্যুতে মিজানুর রহমান লিটনের শোক চাঁদপুর পদ্মা নদীতে গুলি ও দেশীয় অস্ত্রসহ ৫ নৌ ডাকাত

চাঁদপুর ডাকাতিয়া নদীতে ট্রলার-বাল্কহেডের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৫

মেঘনার আলো ২৪ ডেস্ক / ৯৭ বার পঠিত
আপডেট : সোমবার, ৩১ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:৩৬ অপরাহ্ণ

 

 

এম আই দিদার

চাঁদপুর সদরের উপজেলার বাগাদী মোমিনপুরে ডাকাতিয়া নদীতে ট্রলার-বাল্কহেডের মুখোমুখি সংঘর্ষে অন্তত ৫ জন নিহতের ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার (৩১ জানুয়ারি)  ভোর ৬ টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। চাঁদপুরের ফায়ার সার্ভিস, কোষ্টগার্ড ও নৌ পুলিশ এসংবাদ লেখা পর্যন্ত ঘটনাস্থলে উদ্ধার চালাচ্ছে।

চাঁদপুর নৌ থানার ওসি মোঃ মুজাহিদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, চাঁদপুর সদরের রামপুর ইটভাটা এলাকা হতে ১১ জন মাটিকাটার শ্রমিক চাঁদপুরগামী ট্রলারে উঠে বাগাদীর সাহেববাজার মোমিনপুর এলাকার মাঝামাঝী অতিক্রমকালে হাজীগঞ্জগামী ১টি বাল্কহেডের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে নিখোঁজ হন মোট ১১ জন। পরে ৬ জন সাঁতরে নদীর তীরে উঠলেও ৫ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নৌ থানার ওসি মোঃ মুজাহিদুল ইসলাম আরও জানান, ৪ জন সাথে সাথে স্পটে মারা গেলেও একজনকে সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে তিনি সেখানে মারা যান। নিহতদের মধ্যে কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার মো. আওয়াল (৫০), মো. মোবারক (৪৫), মো. নাসির (৩২), আল-আমিন (৩৫) ও নজরুল (৩৫) নামের ৫ শ্রমিকের মরদেহ আমরা উদ্ধার করেছি। আমরা নিহতদের পরিবারের কাছে সবার মরদেহ হস্তান্তরের ব্যবস্থা করছি।

চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স উত্তরের উপ সহকারী পরিচালক মো. সাহিদুল ইসলাম জানান,হাজীগঞ্জ থেকে বালুবাহী একটি বাল্কহেড চাঁদপুর আসছিল। ঘনকুয়াশার কারনে চাঁদপুরের ডাকাতিয়া নদীর মমিনপুর এলাকায় মাটিবাহী ট্রলারের সঙ্গে মুখোমুখী সংঘর্ষ  হয়। এ ঘটনায়  ট্রালারচি ডুবে  ১১ শ্রমিক নদীতে পড়ে যায়। এদের মধ্যে ৬জন সাতরে তীরে আসলেও ৫জন নিখোঁজ হন। তিনি আরো জানান, আমাদের ডুবুরি দল চারজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে। আরেকজনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধারের পর হাসপাতালে নেয়ার পর তার মৃত্যু হয়। তবে ট্রলারটি এখনো ঘটনাস্থলেই ডুবন্ত অবস্থায় রয়েছে।

চাঁদপুর কোষ্টগার্ড ষ্টেশনের মিডিয়া কর্মকর্তা মেহেদী জানান, এ ঘটনা ঘটিয়েছে এমভি ইকবাল হোসেন-১ নামের বাল্কহেডটি। যা চালাচ্ছিলেন এর মালিক ইকবাল হোসেন নিজেই। তিনি ফরিদগঞ্জের চর হোগলা গ্রামের বাসিন্দা। আমরা ইকবালকেসহ তার বাল্কহেডটি দ্রুত আটক করেছি। ট্রলারটি ডুবে যাওয়ায় ট্রলারটি খোঁজার চেষ্টা চলছে।

চাঁদপুর নৌ পুলিশের এসপি মো. কামরুজ্জামান বলেন, আমরা বালুবাহী ব্লাকহেডটি ও এর সুকানিসহ ৪জনকে আটক করা হয়েছে। এরঘটনায় মামলা হবে। এছাড়া তদন্তের জন্য তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘঠন করা হবে বলেও তিনি জানান।

এদিকে ডাকাতিয়া নদীর মমিনপুর এলাকায় ট্রলার ডুবে ৫ শ্রমিক নিহতের ঘটনায় ঐ এলাকা ও আশে-পাশের শতশত উৎসুক জনতা নদীর তীরবর্তী এলাকা ভীড় জমায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

এক ক্লিকে বিভাগের খবর