শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৬:০১ অপরাহ্ন

আইফোন অর্ডার দিয়ে ডেলিভারি বয়কে খুন

মেঘনার আলো ২৪ ডেস্ক / ৩০ বার পঠিত
আপডেট : সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৮:৩৫ অপরাহ্ণ

 

একটি ই-কমার্স সাইটে প্রায় ৬০ হাজার টাকা মূল্যের একটি আইফোন অর্ডার করেন এক যুবক। কিন্তু মোবাইল কেনার মতো টাকা তার কাছে ছিল না। তাই ডেলিভারি বয় পৌঁছাতেই আইফোনটি নিয়ে তাকে খুন করেন। তার পর চার দিন মরদেহ লুকিয়ে রেখে শেষমেশ পুড়িয়েও দেন। এমনই অভিযোগে তোলপাড় ভারতের কর্নাটকের হাসান জেলার আরাসিকিরে অঞ্চল।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্তের নাম হেমন্ত দত্ত এবং নিহত ডেলিভারি বয়ের নাম হেমন্ত নায়েক। ২৩ বছরের ওই যুবককে খুনের পর বাড়িতেই দেহ লুকিয়ে রেখেছিলেন হেমন্ত। শনিবার অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, দিন কয়েক আগে একটি ই-কমার্স সাইটে ৪৬ হাজার রুপির আইফোন অর্ডার করেন হেমন্ত দত্ত। গত ৭ ফেব্রুয়ারি ডেলিভারি বয় হেমন্ত নায়েক ওই ফোনটি নিয়ে দত্তের বাড়ির ঠিকানায় পৌঁছান। কিন্তু ফোন নিয়ে পৌঁছনোর পর ডেলিভারি বয়কেই মোড়ক খুলতে বলেন দত্ত। কিন্তু ডেলিভারি বয় অস্বীকৃতি জানান এবং আইফোনের দাম চান।

 

এরপর কথা কাটাকাটি হতেই ডেলিভারি বয়কে ভারী কিছু দিয়ে আঘাত করে খুন করেন হেমন্ত দত্ত।দিন চারেক নিজের বাড়িতে মরদেহ লুকিয়েও রেখেছিলেন। পরে গত ১১ ফেব্রুয়ারি রাতে একটি রেলসেতুর কাছে কেরোসিন ঢেলে মরদেহে আগুন ধরিয়ে দেন অভিযুক্ত।

অন্যদিকে, ভাইকে খুঁজে না পেয়ে ডেলিভারি বয়ের ভাই মঞ্জুনাথ নায়েক পুলিশের দ্বারস্থ হন। নিখোঁজ ডায়েরি করেন তিনি। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। তার পরই এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসে।

পুলিশ ওই ডেলিভারি বয়ের মোবাইলের টাওয়ার লোকেশন ট্র্যাক করে অভিযুক্তের কাছে পৌঁছয়। সেখানেই মৃতের মোবাইল ফোন পাওয়া যায়। এ ছাড়া, সংশ্লিষ্ট ই-কমার্স সংস্থার ব্যাগও মেলে অভিযুক্তের বাড়িতে।

পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত নিজেও আগে ই-কমার্স কম্পানিতে ডেলিভারি বয়ের কাজ করতেন। পরে তিনি কাজ ছেড়ে দেন। শখের ফোন অর্ডার করে টাকা জোগাড় করতে পারেননি। কীভাবে টাকা দেবেন, এ সব ভাবতে ভাবতে ডেলিভারি বয়কে খুনের সিদ্ধান্ত নেন তিনি। এ ঘটনার আরো বিস্তারিত জানতে অভিযুক্তকে হেফাজতে নিয়ে জেরা করছে পুলিশ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

এক ক্লিকে বিভাগের খবর