রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১০:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
আওয়ামী লীগ দলীয় সম্ভাব‍্য চেয়ারম্যান প্রার্থী আলী আক্কাছ পাটোয়ারীর পক্ষে গন জোয়ার বেনাপোলে ককটেল বিষ্ফোরনে তিন যুবক গুরুত্বপূর্ণ আহত ভাঙা পা নিয়ে শুটিং করে শয্যাশায়ী অঙ্কুশ যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে গোলাগুলি, হতাহত ৮ রোহিঙ্গা ক্যাম্প কার নিয়ন্ত্রণে? বাকেরগঞ্জে জমিসংক্রান্ত বিরোধে যুবক খুন হাজীগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির পরিদর্শণ করলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ । জঙ্গিবাদের তকমা আর মৌলবাদের উত্থানের কথা বলে দীর্ঘ সময় সরকারে থাকতে চায় আ’লীগ — বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বাবু গয়েশ্বর চন্দ্র রায় চাঁদপুরে পিবিআই’ র প্রেস ব্রিপিং শাহরাস্তিতে চাঞ্চল্যকর জোড়া খুনের রহস্য উদঘাটন চাঁদপুর ড্যাফোডিলে  নিসচার উদ্ভুদ্ধকরণ সভা        টিভিতে আজকের খেলা

মাদক,সন্ত্রাস ও বাল‍্য বিবাহের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষণা করবো—————–চেয়ারম‍্যান প্রার্থী এমরান হোসেন মিলন ভূইঁয়া

মেঘনার আলো ২৪ ডেস্ক / ২৭১ বার পঠিত
আপডেট : মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর, ২০২১, ৩:৫৭ অপরাহ্ণ

ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি :

মাদক, সন্ত্রাস ও বাল‍্য বিবাহের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষণা করার অঙ্গীকার ব‍্যাক্ত করেন চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. এমরান হোসেন মিলন ভূইঁয়া।

 

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৯ নং গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ব‍্যাপক গনসংযোগ করে আসছেন এমরান হোসেন মিলন ভূইঁয়া। তরুণ মেধাবী এ চেয়ারম্যান প্রার্থী ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণের কাছে প্রিয় একজন মানুষ। সবার সঙ্গে সদ্ব্যবহার করে সুনাম কুড়িছেন এ চেয়ারম্যান প্রার্থী।

ইউনিয়নের তরুন ও যুবকদের এক প্রিয় নাম এমরান হোসেন মিলন ভূইঁয়া। তিনি তরুনদের মাদক থেকে দূরে রাখার জন্য মাঝে মাঝে ইউনিয়নে বিভিন্ন খেলার আয়োজন করেন।

ইউনিয়নের কয়েকজন সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলে জানা যায় এ চেয়ারম্যান প্রার্থী গরীব অসহায়দের সবসময় খোঁজ খবর রাখেন। কোন গরীব মেয়ের বিয়ে অথবা কেউ অসুস্থ হলে সেখানে ছুটে যান এবং সাধ‍্যমত আর্থিক সহযোগিতাও করেন।

এমরান হোসেন মিলন ভূইঁয়া এর পূর্বেও আওয়ামী লীগ থেকে দলীয় নমিনেশন চেয়েছিলেন কিন্তু নমিনেশন পাননি। তারপরও দলের প্রতি সম্মান জানিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী না হয়ে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছেন।

এমরান হোসেন মিলন ভূইঁয়া একজন আওয়ামী পরিবারের ত‍্যাগী এক নেতা। আওয়ামী লীগের দুঃসময়ের এক পরিক্ষিত কর্মির নাম এমরান হোসেন মিলন ভূইঁয়া।

এ চেয়ারম্যান প্রার্থী ১৯৯৫ সাল থেকে ২০০৪ সাল পযর্ন্ত ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৫ সাল থেকে ২০১২ সাল পযর্ন্ত ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে এমরান হোসেন মিলন ভূইঁয়া। ২০১৩ সাল থেকে ২০১৬ সাল পযর্ন্ত তিনি উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বতর্মানে তিনি ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতির পদে অধিষ্ঠিত আছেন।
এমরান হোসেন মিলন ভূইঁয়ার দাদা ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক। তিনি মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তীতে ভাইস-চেয়ারম‍্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। চেয়ারম্যান প্রার্থী এমরান হোসেন মিলন ভূইয়ার বাবা ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দীর্ঘদিনের সাধারণ সম্পাদক। উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছিলেন।
বিএনপি জোট সরকারের সময় মামলা-হামলার স্বীকার এমরান হোসেন মিলন ভূইঁয়া বলেন, আওয়ামী লীগের প্রতিটি নির্বাচনে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছি। কখনও শত্রু দেখে ভয়ে পালিয়ে যাইনি। বহুবার শারীরিক হামলার স্বীকার হয়েছি।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বতর্মানে আমার ইউনিয়ের রাস্তাগুলো খুবই খারাপ। আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে রাস্তাঘাট পাঁকা করনে বিশেষ ভূমিকা রাখবো। সরকারের যাবতীয় উন্নয়ন কাজগুলো সাধারণ মানুষের দোড়গোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার ব‍্যবস্থা করবো। সরকারের পক্ষ থেকে গরীবের জন্য বরাদ্দকৃত বিভিন্ন ধরনের কার্ডগুলো সুসম বন্টনের ব‍্যবস্থা করবো।

মো. এমরান হোসেন মিলন ভূইঁয়া বলেন, দল পরীক্ষীত ত‍্যাগী সৎ আওয়ামী পরিবারের একজন প্রার্থীকেই দলীয় নমিনেশন দেবে বলেই আমার বিশ্বাস।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

এক ক্লিকে বিভাগের খবর